তজুমদ্দিনে টেকশই বেড়িবাঁধ নির্মাণ,অপরূপ সৌন্দর্যের হাতছানি।

প্রথম পাতা » এক্সক্লুসিভ » তজুমদ্দিনে টেকশই বেড়িবাঁধ নির্মাণ,অপরূপ সৌন্দর্যের হাতছানি।
বুধবার, ৩১ আগস্ট ২০২২



 

 

মেহেদী হাসান মামুন।তজুমদ্দিন (ভোলা)সংবাদদাতা।

মনোরম পরিবেশ, নদীর ঢেউ আর বাহারি ডিজাইনের ব্লকে নির্মিত হয়েছে মেঘনার পাড়। যেন অপরূপ সৌন্দের্যের হাতছানি। নানান রঙ্গে সাজানো ব্লকের উপর বসে মেঘনার বিশাল জলরাশির দিকে দৃষ্টি গেলে আবেশে মন জুড়িয়ে যায়। ঢেউয়ের তোড়ে খেলা করে হরেক রকমের দৃষ্টিনন্দন পাখিরা। শীতল বাতাস এসে ছুঁয়ে যায় কঁচি-কোমল ঘাস। এসব দৃশ্য ভোলার তজুমদ্দিনের মেঘনার পাড়ের।

 

তজুমদ্দিনে টেকশই বেড়িবাঁধ নির্মাণ,অপরূপ সৌন্দর্যের হাতছানি।সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নদী ভাঙন রোধে তজুমদ্দিনের প্রায় ৬শ’ কোটি টাকার সিসি ব্লক স্থাপনের কাজ বাস্তবায়ন করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। যে কারণে পাল্টে গেছে নদীর পাড়ের সার্বিক চিত্র। নদী বাঁধের কাজে ব্যবহত ব্লককে কাজে লাগিয়ে বাহারি সাজে সাজানো হয়েছে তজুমদ্দিনের চৌমহনী ঘাট থেকে দক্ষিণ দিকে প্রায় সাড়ে ৬ কিলোমিটার বিস্তৃত এলাকা।

 

সারিবদ্ধভাবে ব্লকের উপর আবার সাদা, লাল ও হলুদ রঙের ৩টি করে ব্লক বসিয়ে সাজানো হয়েছে বাহারি রূপে। নানা সৌন্দর্যের কারণে স্থানীয়দের পাশাপাশি পাশ্ববর্তী উপজেলা থেকেও সৌন্দর্য পিপাসু মানুষগুলো তার পরিবার পরিজন নিয়ে বিকাল বেলা বাহারি রঙের ব্লকের বসেই প্রাকৃতিক দৃশ্য উপভোগ করছে।

 

তজুমদ্দিন রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এম নয়ন ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সাদির হোসেন রাহিম বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও আগামীর সম্ভাবনাময় পর্যটন কেন্দ্র তজুমদ্দিনের মেঘনার পাড়ে ভালোবাসার টানে ছুটে যাই সৌন্দর্য উপভোগ করতে। আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন এমপি মহোদয়ের প্রচেষ্টায় এ অঞ্চলের মানুষগুলো ভাঙনের ভয়াল থাবা থেকে যেমন রক্ষা পেয়েছে তেমনি ব্লকের সৌন্দর্যে মুগ্ধ পর্যটকরা।

 

তজুমদ্দিন হোসনেআরা চৌধুরী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিন সুমন ও সোনাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান মিশু বলেন, সংসদ সদস্য নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন নদী ভাঙনরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ায় বদলে গেছে নদীর পাড়ের মানুষের ভাগ্য। যেখানে মানুষের ভিটেমাটি হারনোর ভয় ছিল প্রতিনিয়ত, সেই নদীর পাড় এখন এক অপরূপ প্রাকৃতিক পর্যটন স্পটের পাশাপাশি মানুষের অবকাশ যাপনের উত্তম স্থানে পরিনত হয়েছে।

 

মেঘনার পাড়ে ঘুরতে আসা তজুমদ্দিন প্রেসক্লাবের সভাপতি রফিকুল ইসলাম সাদী ও সাধারণ সম্পাদক এম নূরুন্নবী বলেন, মানুষ প্রকৃতিগতভাবেই প্রকৃতি প্রেমিক। তজুমদ্দিনের মেঘনায় রয়েছে বিশাল জলরাশি। যেখানে যেকোন ভ্রমণ পিপাসুর মনের খোড়াক যোগাতে সক্ষম। ইতোমধ্যে তজুমদ্দিনের বেড়িবাঁধে রঙ-বেরঙের যেসব ব্লক বসানো হয়েছে তাতে এই সৌন্দর্যের মাত্রা অনেকগুন বেড়ে গেছে। পাশাপাশি একটি টেকশই বেড়িবাঁধও নির্মাণ হয়েছে


বাংলাদেশ সময়: ২১:২৯:৫৫   ৯৭ বার পঠিত  |




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

এক্সক্লুসিভ’র আরও খবর


দাম অযৌক্তিক বলছেন বাজার সংশ্লিষ্টরাভোলায় ভরা মৌসুমেও কমেনি সবজির দাম: লাগামহীন দামে দিশেহারা ক্রেতা
ভোলায় শৈত্যপ্রবাহে হাঁড় কাঁপানো শীতে জনজীবন বিপন্ন
ভোলায় রাতের আঁধারে কম্বল হাতে মানুষের দ্বারে জেলা প্রশাসক
মনপুরায় বিষধর রাসেল ভাইপার উদ্ধার।।বনে অবমুক্ত
হোগলা পাতায় ভাগ্য বদলের সংগ্রাম শত নারী”র
ভোলায় ২দিন ব্যাপী জেলা সাহিত্য মেলার উদ্বোধন
কমে গেল আলুর দামভোলায় দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে মাঠে নামলো উপজেলা প্রশাসন।
নকল পণ্য ঠেকাতে সাইফুলেরে উদ্ভাবন
বাপ্তা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দ্যেগে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত আহসান হাবিবকে সংবর্ধনা
‘স্মার্ট রেলক্রসিং সিস্টেম’ আবিষ্কার করেছেন খুদে বিজ্ঞানী লাবিব

আর্কাইভ