শিরোনাম:
ভোলা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

Bholabani
সোমবার ● ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
প্রথম পাতা » খেলাধূলা » এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা
প্রথম পাতা » খেলাধূলা » এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা
৩৫ বার পঠিত
সোমবার ● ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা

ভোলাবাণী স্পোর্টস ডেক্স ঃ
ফাইনালের আগে বেশ আলোচনা হচ্ছিল টস নিয়ে। ইতিহাস বলছিল, টস জিতলেই যে আরব আমিরাতের মাটিতে ম্যাচ জেতা হয়ে যায় অনেকটাই! সেই টসে আজ জিতেছিল পাকিস্তান, নিয়েছিল ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত। টুর্নামেন্টে টসে জিতে ফিল্ডিং নেওয়া, এরপর রান তাড়া করে ম্যাচ জেতার যে ধারা চলে আসছিল, তাতে পাকিস্তানের জয়টাকেই মনে হচ্ছিল সম্ভাব্য নিয়তি।

২৩ রানের জয় নিয়ে শ্রীলঙ্কা মাতে শিরোপার উৎসবে।বিশেষ করে ম্যাচের প্রথম ১০ ওভারের পর তো বটেই! তবে সব পাশার দান উল্টে দিয়ে অবশেষে শ্রীলঙ্কাই জিতেছে আজ, তাতে পাকিস্তানের স্বপ্ন ভেঙে এশিয়া কাপটাও ষষ্ঠবারের মতো উঠে গেছে লঙ্কারদের ট্রফি কেসে।

কথায় বলে, উঠন্তি মুলো নাকি পত্তনেই চেনা যায়। তবে আজকের ম্যাচে সেটা চেনা যায়নি মোটেও। শুরুর ওভারে নাসিম শাহর কুশল মেন্ডিসের ওভাবে স্টাম্প উপড়ে ফেলা, এরপর পাওয়ারপ্লেতে হারিস রউফের গতির কাছে লঙ্কান টপ অর্ডারের মুখ থুবড়ে পড়া দেখে কে ভেবেছিল শেষ হাসিটা হাসবে শ্রীলঙ্কা?

একজন অন্তত ভেবেছিলেন; শুধু ভাবেনইনি, স্রোতের বিপরীতে বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়েও গিয়েছিলেন। তথৈবচ এক পাওয়ারপ্লের পর ১০ ওভারের আগেই ৫ উইকেট খোয়ানো শ্রীলঙ্কাকে ভানুকা রাজাপাকশেই কক্ষপথে ফিরিয়েছেন দারুণ প্রতি আক্রমণের কৌশলে।

শুরুতে ওয়ানিন্দু হাসরাঙ্গার সঙ্গ পেয়েছিলেন, ২১ বলে তার ৩৫ রানের ইনিংস বলছে, প্রতি আক্রমণের গোড়াপত্তনে তার ভূমিকাটাও কম নয়। তবে দলীয় ১১৬ রানে তিনি যখন ফিরলেন, এরপর লঙ্কানদের ইনিংসটা প্রায় একাই টেনেছেন ভানুকা। শাদাব খানের কল্যাণে দুবার ‘জীবন’ পেয়েছেন বটে, তবে এরপর তিনি দেখিয়েছেন কী করে ফেরত পাওয়া জীবন কাজে লাগাতে হয়। ৪৫ বল খেলে তিনি করেছেন ৭১ রান, তাতেই পাকিস্তানের সামনে ১৭০ রানের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয় লঙ্কানরা।

লঙ্কানদের শিরোপাজয়ের উঠন্তি মুলোটা চেনা যায়নি পাক ইনিংসের শুরুতেও। দিলশান মাদুশাঙ্কার করা প্রথম ওভারে যে কোনো বৈধ বল মাঠে গড়ানোর আগেই যে পাক স্কোরবোর্ডে জমা পড়ে গিয়েছিল ৯ রান!

এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাফাইনালের মতো মঞ্চে এমন শুরু যে কোনো দলকেই ভড়কে দিতে যথেষ্ট। তবে লঙ্কানদের পারেনি। তাদের যে একজন প্রমোদ মাদুশান ছিলেন! তার কল্যাণেই পঞ্চম ওভারে বাবর আজমকে তুলে নেয় শ্রীলঙ্কা, এক বল পর ফখর জামানকেও।

সেই জোড়া ধাক্কা সামলাতে ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান আর চারে নামা ইফতিখার আহমেদ রীতিমতো খোলসেই ঢুকে পড়েছিলেন। পাকিস্তান উইকেট খোয়াচ্ছিল না বটে, কিন্তু আস্কিং রেটটা তখন বেড়ে যাচ্ছিল চড়চড় করে। ১৪তম ওভারের দ্বিতীয় বলে যখন ইফতিখার ফিরছেন ওয়ানডে মেজাজে ৩১ বলে ৩২ রানের ইনিংস খেলে, তখন পাকিস্তানের রান তিন অঙ্কই ছোঁয়নি।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
চরফ্যাশনে দেশী হাঁসের কালো ডিম নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যে
যে কোন সংকটে মানবসেবায় ঝাঁপিয়ে পড়েন শাহপরান জয়
যৌনতায় সুখ পেলই বিয়ে হয় যেখানে
তজুমদ্দিনে টেকশই বেড়িবাঁধ নির্মাণ,অপরূপ সৌন্দর্যের হাতছানি।
ঘাটে ভিড়ছে না লঞ্চ, ভোগান্তিতে তজুমদ্দিনের ব্যবসায়ী ও লক্ষাধিক মানুষ।
ভোলায় শ্বশুর বাড়িতে স্বামীর উপর স্ত্রী পক্ষের হামলায় আহত-৩
ঈদের রেসিপি: মচমচে ভুঁড়ি ভুনা
গরুর মাংস ফ্রিজ ছাড়া যেভাবে সংরক্ষণ করবেন
বিশ্ববাজারে কমেছে স্বর্ণের দাম
আবার এসেছে আষাঢ়