শিরোনাম:
ভোলা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

Bholabani
বৃহস্পতিবার ● ৯ জুন ২০২২
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » বসত ঘর ভেঙে দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা, ভয়ে বাড়ি ছেড়ে অনত্র বসবাস
প্রথম পাতা » প্রধান সংবাদ » বসত ঘর ভেঙে দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা, ভয়ে বাড়ি ছেড়ে অনত্র বসবাস
৪৬ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ৯ জুন ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

বসত ঘর ভেঙে দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা, ভয়ে বাড়ি ছেড়ে অনত্র বসবাস

স্টাফ রিপোর্টার ॥ভোলাবাণী

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় অন্যের জমি দখল নিতে বসত ঘর ভেঙে দিয়ে পাকা ভবন নির্মান অভিযোগ ওঠেছে একটি প্রভাবশালী চক্রের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে আদালতে মামলা দিলেও কোনো প্রতিকার না পেয়ে অনত্র বসবাস করছেন ওই ঘরের বাসিন্দারা।

বসত ঘর ভেঙে দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা।।ভুক্তভোগীর সংবাদ সম্মেলনবৃহস্পতিবার (০৯ জুন) সকালে ভোলা শহরের একটি পত্রিকা অফিসে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের মুলাইপত্তন গ্রামের মো. জামাল উদ্দিনের স্ত্রী জান্নাত বেগম।

লিখিত বক্তব্যে জান্নাত বেগম অভিযোগ করে বলেন, টবগী ইউনিয়নের তাঁর শ^শুর আনোয়ার হোসেন ও চাচা শ^শুর মো. এছহাকের এক একর ৮৩ শতাংশ পৈত্রিক জমিতে দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করে আসছেন। ওই জমিতে তিনটি বসতঘর, পুকুর, একটি বাগান রয়েছে। বাকী জমি চাষাবাদ করছেন তাঁরা। জমিতে থাকা একটি ঘরে জান্নাত বেগম স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে থাকেন। আরেকটিতে তাঁর ননদ জোসনা বেগম এবং অপরদিকে চাচা শ^শুড়ের ছেলে মো. জাকির হোসেন বসবাস করছেন। তাঁর স্বামী চট্টগ্রামে চাকরি করায় সে ওই বসতঘরে সন্তানদের নিয়ে থাকেন।

সাম্প্রতিক সময়ে তাদের পাশ^বর্তী মো. নোয়াব মিয়া ওই জমি দখল করার পায়তারা করে আসছে। গত ১২মে সকাল ১০টার দিকে লোকজন নিয়ে নোয়াব মিয়া ও তার ছেলেরা তাদের বাড়িতে প্রবেশ করে সাবইকে অস্ত্রে মুখে জিম্মি করে ভয়ভীতি দেখিয়ে পুকুরের প্রায় ২লাখ টাকার মাছ ধরে নিয়ে যায়। পরের দিন ১৩মে সকালে আবারও তাদের বাগানে প্রবেশ করে প্রায় দুই শতাধিক বিভিন্ন ধরনের গাছ কেটে নিয়ে যায়। এরপর ১৮মে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়িতে প্রবেশ করে তাকে ও তাঁর দুই মেয়ে সুমাইয়া আক্তার (১৫) ও তামান্না (১১) এর চুল ধরে বসতঘর থেকে বের করে বাড়িব উঠানে এনে মারধর করে। এসময় তাঁরা ডাকচিৎকার করলে হামলাকারীরা অস্ত্রের মূখে জিম্মি করে হত্যার হুমকী দিয়ে তাদের বসতঘর ভাঙচুর করে ঘরের মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।

জান্নাত আরো অভিযোগ করে বলেন, গত ১২মে ও ১৩মের ঘটনার পরে তারা ভয়ে থানায় অভিযোগ করেননি। কিন্তু ১৮মের ঘটনায় বাধ্য হয়ে তাঁরা ওই দিন সন্ধ্যায় বোরহানউদ্দিন থানায় গিয়ে নোয়াব মিয়া ও তার ছেলেদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু পুলিশের তেমন কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় ঘটনার ৪দিন পর ভোলার আদালতে নোয়াব মিয়া ও তাঁর ছেলেদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর নোয়াব মিয়ার নেতৃত্বে তাঁর ছেলেরা জান্নাত বেগমের বসতঘরের জমিতে ইট নিয়ে তিন তলা পাকা ভবন নির্মাণ শুরু করেন। এ ঘটনায় তাঁরা ভয়ে বাঁধা দিতেও সাহস পাচ্ছেনা। তাই জান্নাত বেগম তাঁর দুই মেয়ে ও একটি ছেলে সন্তান নিয়ে এখন বাবার বাড়িতেই রয়েছেন। নোয়াব মিয়া ও তাঁর ছেলেদের ভয়ে তাঁরা নিজেদের বাড়িতে যেতে পারছেন না। এ ঘটনায় তাঁরা সঠিক বিচার দাবি করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, জান্নাত বেগমের শ^শুর আনোয়ার হোসেন, মেয়ে সুমাইয়া ও তামান্না বেগম।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নোয়াব মিয়ার ছেলে মো. ফিরোজ জমি তাদের দাবি করে বলেন, এ জমি নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস হয়েছে। সর্বশেষ গত ২৫মে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের শালিসদার ছিলেন। সেখানে কাগজপত্র দেখে শালিসদারগন আমাদের পক্ষ রায় দিয়েছে।

বোরহানউদ্দিন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
আবার এসেছে আষাঢ়
লালমোহনে বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রধান শিক্ষককে অব্যহতি
ভোলায় চাঞ্চল্যকর পর্নোগ্রাফি মামলার আসামি ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে গ্রেফতার
মনপুরায় বিআইডব্লিটিসি ও বিআইডব্লিটিএর কর্মকর্তাদের ফেরিঘাট পরিদর্শন ও সুধি সমাবেশ
কুকরী-মুকরী জেলের জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির কচ্ছপ-ডলফিন
ভোলায় একজন বাকপ্রতিবন্ধী ঠিকানাহীন মেয়ে খুঁজে পেলো স্থায়ী নিরাপদ আশ্রয়স্থল।
দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু
এনজিওতে চাকরির সুযোগ
বাংলাদেশের উপকূলেই আসবে অশনি!
লালমোহনে জেলেদের জালে ধরা পড়লো রাজা ইলিশ