শিরোনাম:
ভোলা, শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮

Bholabani
শনিবার ● ১১ ডিসেম্বর ২০২১
প্রথম পাতা » দক্ষিণ আইচা » চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবির ৬ দিন পর ৩ জেলের সন্ধান মিলেছে
প্রথম পাতা » দক্ষিণ আইচা » চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবির ৬ দিন পর ৩ জেলের সন্ধান মিলেছে
১৪০ বার পঠিত
শনিবার ● ১১ ডিসেম্বর ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবির ৬ দিন পর ৩ জেলের সন্ধান মিলেছে

 

 

সেলিম রানা ।। ভোলাবাণী ঃ ভোলা চরফ্যাশন উপজেলার ঢালচরের দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে ২১ জেলে নিয়ে ট্রলার ডুবে যাওয়ার ৬ দিন পর ৩ জেলের সন্ধান মিলেছে।  নিখোঁজ  শাহিন তার পিতা সেকান্দার ওরফে সিডু মাঝিকে আজ(১১/১২/২১)শনিবার দুপুর ১২টার সময় ফোন করে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

শাহিনের পিতা  সেকান্দার ওরফে সিডু মাঝির সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, আজ শনিবার দুপুর ১২টার সময় ০১৭৬৮০৯৯৭৩৫ নাম্বার থেকে শাহিন ফোন করে জানান তারা কক্সবাজারের  একটি মাছ ধরার ট্রলারের মাধ্যমে সাগর থেকে উদ্ধার হয়েছেন। শাহিনরসুলপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সেকান্দার বেপারীর ছেলে। আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নের  খালেক,চরমানিকা ইউনিয়নে ৭ নং ওয়ার্ডের মৃত হানিফ মুন্সীর ছেলে  হারুন তার সাথে রয়েছেন  বলে জানান শাহিন।

চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবির ৬ দিন পর ৩ জেলের সন্ধান মিলেছে চট্টগ্রাম বাঁশখালির   গিয়াসউদ্দিন মাঝি জানান, দুর্ঘটনার পরের দিন বিকেল ৪টার সময় ৩ জেলেকে বঙ্গোপসাগর থেকে উদ্ধার করেছি। মাছ ধরা শেষে ট্রলারটি ফিরে আসলে তাদেরকে ভোলা আসার ব্যবস্থা করে দিবো । তবে এখনও  নিখোঁজ  রয়েছেন  বাচ্ছু মাঝি, আলামিন মাঝি, ফারুক হাওলাদার, জাবেদ, খালেক, ইউছুফ মৌলভী, জসিম জমাদার, রফিক, মাসুদ, বাচ্চু,    নুরুল ইসলাম, নুরে আলম, আবুল বাসার, সুমন,   দিন ইসলাম, নাগর মাঝি,  মো. আলী, মিজান। এসব নিখোঁজ জেলেদের সন্ধান না পেয়ে তাদের পরিবারে বইছে শোকের মাতম।

 

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ   এর সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, কোন জেলে উদ্ধারের বিষয়টি আমাদেরকে   নিশ্চিত করেননি। যেহেতু জেলেরা পরিবারের সদস্যদের  সাথে কথা বলেছে  অবশ্যই ফিরে আসার জন্য আমরাও  সহযোগিতা  করব।

 চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল নোমান বলেন জেলে উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় স্বস্তি  ফিরে আসবে।উল্লেখ্যে যে গত ৫ ডিসেম্বর ভোলার চরফ্যাসন উপজেলার ঢালচর থেকে ৩১ কিলোমিটার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরে চট্রগ্রামের এস আর এল এন -৫ নামের একটি ট্রলিং জাহাজের ধাক্কায় চরফ্যাশন উপজেলার আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নের কালাম খন্দকারের মালিকানাধীন “মা-সামসুন্নাহার” নামে মাছ ধরার ট্রলারটি ২১ জেলে নিয়ে  সাগরে ডুবে যায়, ট্রলার ডুবির ১২ ঘন্টা পর গত সোমবার বেলা ১১ টায় ট্রলার মালিকের ভাই হাফিজকে উদ্ধার করে তাকে পটুয়াখালী জেলার মহিপুর এলাকায় নিয়ে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। এরপরও ২০ জেলে নিখোঁজ রয়েছে, নিখোঁজের ৬ দিন অতিবাহিত হলে শনিবার দুপুর ১২ টার সময় তিন জেলের সন্ধান পাওয়া গেলেও এখনও নিখোঁজ রয়েছে ১৭ জেলে।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
লালমোহনে পুকুরে ‘সাকার ফিশ’
বিজয়ের মাসেও অরক্ষিত বীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিফলক
তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
ভোলায় প্রথম চরফ্যাসন সেন্ট্রাল হাসপাতালে কিডনি ডায়ালাইসিস মেশিন স্থাপন
দেশজুড়ে রের্ড এলার্ট।।পুলিশের সর্বোচ্চ সতর্কতা
ক্যান্সার আক্রান্ত শিশু রাজ্জাকের পাশে দাড়ালেন ভোলা জেলা প্রবাসী কল‍্যান সংগঠন।।
তজুমদ্দিনে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ, আর্থিক জরিমানা ॥
বঙ্গবন্ধুর স্নেহের তোফায়েল আহমেদের জন্মদিন আজ
নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা ।।মনপুরায় রাতের আধারে হোম ডেলিভারী সার্ভিসে বিক্রি হচ্ছে মা ইলিশ
ভোলা জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে আ্যওয়ার্ড পেয়েছেন আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াদুদ মিয়া