শিরোনাম:
ভোলা, রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

Bholabani
শুক্রবার ● ২ জুলাই ২০২১
প্রথম পাতা » দৌলতখান » জলদস্যু আতঙ্কে মেঘনায় ইলিশ ধরতে পারছে না জেলেরা
প্রথম পাতা » দৌলতখান » জলদস্যু আতঙ্কে মেঘনায় ইলিশ ধরতে পারছে না জেলেরা
৬৮ বার পঠিত
শুক্রবার ● ২ জুলাই ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

জলদস্যু আতঙ্কে মেঘনায় ইলিশ ধরতে পারছে না জেলেরা


ভোলাবাণী।।দৌলতখান (ভোলা) প্রতিনিধিঃ

ভোলার দৌলতখানে মেঘনা নদীতে ইলিশ সহ অন্যান্য মাছ ধরার এখন ভরা মৌসুম। কিন্তু নদীতে জলদস্যু ও ডাকাতের ভয়ে মাছ ধরতে পারছেন না জেলেরা। প্রতিদিনই জলদস্যুরা হামলা চালিয়ে জাল, নৌকা ও মাছ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। কখনও জেলেদের মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণের ঘটনা ঘটছে। তারপরও জীবনের ঝুঁকি ও রুজি-রোজগারের তাড়নায় নৌকা নিয়ে নদীতে নামছে জেলেরা।


জলদস্যু আতঙ্কে মেঘনায় ইলিশ ধরতে পারছে না জেলেরাজেলেরা নির্ঘুম রাত কাটিয়ে মাছ শিকার করতে গিয়ে জাল নৌকা ও মাছ ধরার সরঞ্জামাদি হারিয়ে খালি হাতে বাড়ি ফিরতে হচ্ছে। জলদস্যুরা নৌকা ও জেলেদেরকে জিম্মি করে নৌকা ভেদে ২০-৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করে নিচ্ছে।


জলদস্যুরা জিম্মি করে জেলেদের স্বজনদের কাছ থেকে বিকাশ বা অন্য মাধ্যমে হাজার হাজার টাকা মুক্তি পণ দাবি করে। টাকা না পাওয়া পর্যন্ত চলতে থাকে জিম্মি করা জেলেদের ওপর নির্মম নির্যাতন।


বাধ্য হয়েই ধার দেনা করে জলদস্যুদেরকে টাকা দিয়ে ছাড়িয়ে আনা হয়। আর প্রাণভয়ে এসব নীরবে হজম করে যান জেলেরা। প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা সংস্থাকে জানাতে ভয় পান।


দিনের বেলা মাছ ধরতে গিয়ে শার্টের ওপরে নৌপুলিশের জ্যাকেট পরা একটি চক্রের চাঁদাবাজির শিকার হচ্ছেন বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলেরা। জেলেদের অভিযোগ নানান ছুতায় নৌকাসহ জেলেদেরকে আটক করে হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা। টাকা আদায়ের ক্ষেত্রে তারাও জলদস্যুদের কৌশলই অবলম্বন করে থাকেন।


উপজেলার মেঘনা সংলগ্ন জেলে অধ্যুষিত ভবানীপুর, পাতারঘাট, ঘোষের হাট, মাঝির হাট, সাতবাড়িয়া ও এসহাক মোড় এলাকায় সরেজমিন ঘুরে জেলেদের দেয়া বক্তব্যে এসব তথ্য জানা যায়। এ সময় তাদের চোখে মুখে ভীতির ছাপ ছিল স্পষ্ট।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এসব জেলেরা জানান, গত এক সপ্তাহে দৌলতখানের জেলেদের ১৫-২০টি নৌকা জলদস্যুদের ডাকাতির শিকার হয়েছে।


গত ২৪ জুন রাতে দৌলতখানের পাতার খাল ঘাট থেকে মোল্লা মাঝির ইঞ্জিনচালিত নৌকাটি নিখোঁজের পর আর সন্ধান পাওয়া যায়নি।


এ সব ঘটনা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা সংস্থাকে জানানো হচ্ছে না কেন এমন প্রশ্নের জবাবে জেলেরা বলেন, তাহলে আমরা জীবন নিয়েই নদী থেকে ফিরতে পারবো না। জলদস্যুদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সংশ্লিষ্টতার কারণে তাদের ওপর জেলেরা ভরসা রাখতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন জেলেরা। নাম বলতে অনিচ্ছুক জেলেরা বলেন জলদস্যু নদীতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। নৌকায় হানা দিয়ে জলদস্যুরা জেলেদেরকে বেধড়ক পিটিয়ে জাল, নগদ অর্থ, মাছ, সোলার প্যানেল, জেলেদের মোবাইল ফোনসহ সব সরঞ্জাম নিয়ে যায়।


এ ব্যাপারে নৌপুলিশকে জিজ্ঞেস করলে তারা বলেন, মেঘনায় দিনরাত নৌপুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। আমরা শুনেছি একটি চক্র নৌপুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা সংস্থার নাম করে জেলেদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করছে। এ ব্যাপারে আমরা কঠোর পদক্ষেপ নিবো।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
তজুমদ্দিনে ইয়াবাসহ দুই বিক্রেতা আটক ॥
নিজ অর্থায়নে রোজিনার লেখাপড়া ও ঘর নির্মাণের দায়িত্ব নেন এমপি মুকুল।
নাসরিন ট্রাজিটির ১৮ বছর পূর্ণ।।ভোলার ইতিহাসে ভয়াবহ একটি দিন।
লকডাউনে বিপর্যস্ত নিম্ন আয়ের মানুষ
তজুমদ্দিনে তিন এজেন্টকে তিনদিন করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
খোঁজ মিলেছে আলোচিত বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনানের
লালমোহনে স্বেচ্ছাশ্রমে জরাজীর্ণ লাইব্রররিকে সাজিয়েছে শিক্ষার্থীরা
ভিক্ষা নয়, কাজ করে খেতে চায় রোকসানা ॥ বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা
ভোলায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
স্রোতধারা সৃজন শক্তি’র ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত