শিরোনাম:
ভোলা, মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮

Bholabani
বৃহস্পতিবার ● ১৫ এপ্রিল ২০২১
প্রথম পাতা » ফিচার » নববর্ষের ইতিকথা
প্রথম পাতা » ফিচার » নববর্ষের ইতিকথা
৬৪ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ১৫ এপ্রিল ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

নববর্ষের ইতিকথা

অরবিন্দ সরকার, বহরমপুর,মুর্শিদাবাদ ||---

বাংলা নববর্ষ,হালখাতার দিন,হাল শব্দটি সংস্কৃত,”হল” শব্দ হতে আসা,যার মানে লাঙল।”হাল” ফারসী শব্দ,যার মানে ” নূতন”।রাজা বা সম্রাটেরা এই সময় খাজনা আদায় করতেন।

মোগল সম্রাটেরা হিজরী পঞ্জিকা অনুসারে খাজনা আদায় করতেন। হিজরী সাল গননা চাঁদের হিসাব অনুযায়ী হয়।তাই সেখানে প্রজাদের খাজনা দিতে অসুবিধা হ’ত। চাষবাস সৌরবছর অনুসারে হয়ে থাকে।

আকবর বাংলা সনের প্রবর্তন করেন,একে “ফসলী সন” বলা হ’ত। পরে এটা বঙ্গাব্দ বা বাংলাবর্ষ নামে পরিচিতি লাভ করে।

বঙ্গাব্দের সূচনা হয় সম্ভবতঃ রাজা শশাঙ্কের সময়কালে।

হজরত মহম্মদ কুরাইশদের অত্যাচারে জন্মভূমি মক্কা ত্যাগ করে মদিনায় আশ্রয় নেন।এই ঘটনাকে আরবী ভাষায় ” হিজরত” বলা হয়।সেখান থেকে হিজরী।

আকবর সিংহাসনে বসেন ৯৬৩ হিজরী বা ১৫৫৬ খ্রিস্টাব্দে। হজরত মহম্মদের স্মৃতি বিজড়িত সেইদিন পালন হয় চৈত্র মাসের শেষের দিকে। সেইসময় সম্রাট প্রজাদের নিকট খাজনা,শুল্ক আদায় করতেন।

মুর্শিদ কুলি খাঁ বাংলায় বৈশাখ মাসে” পূণ্যাহ” প্রথা চালু করেন।সেই দিনে জমিদারেরা তাদের কর প্রদান করতেন।এর দুইশত বছর আগে বাংলায় নববর্ষ পালন হ’ত না। বরং পয়লা জানুয়ারি নিউ ইয়ার পালন করত।

দূর অতীতে নববর্ষ হিম (শীত) ঋতু থেকে বর্ষ গণনা আরম্ভ হ’ত।

শরৎ শব্দের অর্থ  বছর। মানুষ চাইতেন শত শরৎ জীবিত থাকি।তিথি নক্ষত্র দেখে বর্ষ ও শরৎকালের সন্ধিক্ষণকেই  নববর্ষ প্রবেশের উৎসব হিসেবে অনুষ্ঠিত হ’ত। অষ্টমী পূজা শেষে নবমী শুরুর সন্ধিক্ষণ ছিল পুরানো বছর শেষ আর নূতন বছরের শুরু।

১০৮ টি প্রদীপ জ্বালিয়ে নূতন বছরকে বরন করা হ’ত। সেই অনুষ্ঠান পরবর্তী কালে শারদোৎসব হয়ে ওঠে।

প্রাচীন কালে চন্দ্র সূর্য্য গণনা করতে জানত না লোকেরা।তারা অগ্র মানে প্রথম ,হায়ন মানে বছর। অর্থাৎ অগ্রহায়ণ কে প্রথম বছর ধরে চাষবাস শুরু করত। নববর্ষের ভাবনা সীমাবদ্ধ ছিল গ্রামীণ কৃষি জীবিদের মধ্যে।

নববর্ষের ব্যাপকতা আজ অনেক বেশি। মানুষে মানুষে মিষ্টি , খাবার দাবার আদান প্রদান, নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নূতন বছরকে স্বাগত জানিয়ে গ্রহণ করা হয়।





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের ১০০ টাকার পরিবর্তে ৫০০ টাকা উপবৃত্তি দেয়ার সুপারিশ
বেঁচে থাকার সব খোরাক মিলে নদী থেকে!
ওজনে কম দিতে ভারী ঠোঙা ব্যবহার! ছয় ব্যবসায়ীকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা
ভোলায় ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদে ৫ জনের সরকারি চাকুরী
লালমোহনে একসাথে মা-মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
চরফ্যাসন সাংবাদিক কল্যাণ তহবিলের ৪ নতুন মুখ
ভোলায় বিবা’র উদ্যোগে ২ শতাধিক মানুষের মাঝে বিনামূল্যে সবজি বিতরণ
ভোলায় ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী
একজন আলোকিত মানুষ মুহাম্মদ শওকাত হোসেন
২ মাস নিষেধাজ্ঞা, জাল বুনে ব্যস্ত সময় পার করছেন জেলেরা