শিরোনাম:
ভোলা, শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Bholabani
মঙ্গলবার ● ১২ এপ্রিল ২০২২
প্রথম পাতা » দৌলতখান » ভোলায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিজরা সম্প্রদায়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত - ৭
প্রথম পাতা » দৌলতখান » ভোলায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিজরা সম্প্রদায়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত - ৭
১৩৫ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ১২ এপ্রিল ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ভোলায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিজরা সম্প্রদায়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত - ৭

মোঃইমতিয়াজুর রহমান।।স্টাফ রিপোর্টার।।ভোলাবাণী

 

ভোলায় অধিপত্য বিস্তার ও এরিয়া ভিত্তিক ঈদ বোনাসের টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে হিজরা সম্প্রদায়ের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

 

সোমবার (১১ এপ্রিল)  রাত ৮ টায় দৌলতখান উপজেলার বাংলাবাজার বটতলা বাজারে ভোলা সদর উপজেলার হিজরা সম্প্রদায় সর্দার জুই গ্রুপ ও দৌলতখান উপজেলার হিজরা সম্প্রদায় সর্দার ময়না গ্রুপের মাঝে এই  সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে সদর উপজেলার জুই গ্রুপের ৭ জন গুরুত্ব আহত হয়ে ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহতরা হলেন, সর্না, রিদিলা, জারা, সুমনা, সাগরিকা, পাপরি, শারমিন।

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন।

 

ভোলায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিজরা সম্প্রদায়ের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত - ৭আহত রিদিলা হিজরা বলেন, আজ ইফতারের পরে আমার ৭ জন হিজরা দৌলতখান উপজেলার বাংলাবাজার বটতলা বাজারে রোজা ও ঈদ উপলক্ষে চাঁদা উত্তোলনের জন্য যাই। রাত ৮টার দিকে দৌলতখান উপজেলার হিজরাদের সর্দার ময়নার নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জন লোক এসে আমাদের বাজার কমিটির লোকজন ডাকে বলে বাজার থেকে সাইডে নিয়ে যায়। এবং সেখালে ময়না হিজরার লোকেরা আমাদের লাঠি সোঁটা দিয়ে মারতে থাকে আর বলতে থাকে এই এরিয়া আমাদের তোগো এনে কি.? এক পর্যায়ে ময়না হিজরা খুর, চাপাতি ও লোহার পাইব নিয়ে এসে আমাদের উপর এলোপাতাড়ি হামলা করে। আমাদের খুর ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তার সাথে থাকা লোকেরা আমাদের থেকে টাকা পয়সা ও গলার সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

 

আহত সাগরিকা বলেন, আমরা তো ময়না হিজরার এরিয়ায় ডুকে বা তার থেকে ঈদ বোনাসের টাকা উঠাইনি। আমরা সদর উপজেলার বডারে সাধারণ মানুষ থেকে ঈদ উপলক্ষে চাঁদা তুলছিলাম। আমাদের মারলে সাধারণ মানুষ মারতে পারে ময়নার তো মারার কথা না। আমাদের উপর হামলার কঠিন বিচার চাই।

 

সদর উপজেলার হিজরা সম্প্রদায় সর্দার জুই বলেন, চরফ্যাশন, বোরহানউদ্দিন উপজেলার আদুরি, মাদুরী ও পায়েল হিজরা প্রায় সময় আমাদের মোবাইল ফোনে হুমকি দিতো। আমরা যেনো ভোলা থেকে চলে যাই। আজ তাদের কথা না শোনায় দৌলতখানের ময়নাকে দিয়া আমার শীর্ষদের উপর এই হামলা চালিয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, আমরা তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ আমরা অসহায়। আমরা মানুষের থেকে পাঁচ টালা দশ টাকা চাইয়ানেই ওই টাকা দিয়া দুইডা ডাইল ভাত খাইয়া জীবন চালাই। এভাবে চলতে থাকলে আমরা কিভাবে বাঁচব। কিছুদিন আগে হুমকি দিছে আজ মারছে কালকে হয়তো মেরেই ফেলবে। ওরা সাধারণ মানুষের সাথে খারাপ ব্যবহার করে, টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয় আর দোষদেয় আমাদের। এভাবে যদি রাস্তা ঘাটে আমাদের মারে আমরা কোথায় যাবো। আমরা এঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

 

খবর পেয়ে সদর হাসপাতালে দেখতে এসে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) মো.ফরহাদ সরদার জানান, ভোলা সদর উপজেলার জুই  গ্রুপের সদস্যরা দৌলতখান উপজেলার বটতলায় চাঁদা তুলতে গেলে দৌলতখানের ময়না হিজরা গ্রুপে সর্দার ময়না সহ স্থানীয় ১০-১২ জন ছেলে মিলে তাদের  উপর হামলা করে। এতে এক জন গুরুতর সহ আরও ৬ জন আহত হয়েছে। বিষয়টি জানার পরপরই আমাদের টহল টিম স্থানে পৌঁচ্ছে।

পাশাপাশি এ ঘটনায় তদন্ত চলছে তদন্ত সাপেক্ষে

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।






আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
ভোলায় চাঞ্চল্যকর পর্নোগ্রাফি মামলার আসামি ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে গ্রেফতার
মনপুরায় বিআইডব্লিটিসি ও বিআইডব্লিটিএর কর্মকর্তাদের ফেরিঘাট পরিদর্শন ও সুধি সমাবেশ
কুকরী-মুকরী জেলের জালে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির কচ্ছপ-ডলফিন
ভোলায় একজন বাকপ্রতিবন্ধী ঠিকানাহীন মেয়ে খুঁজে পেলো স্থায়ী নিরাপদ আশ্রয়স্থল।
দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু
এনজিওতে চাকরির সুযোগ
বাংলাদেশের উপকূলেই আসবে অশনি!
লালমোহনে জেলেদের জালে ধরা পড়লো রাজা ইলিশ
আজ ইদ পালন করছে ভোলার তিন হাজার পরিবার
নৌপুলিশের গুলিতে জেলে নিহত।। নিহত আমির হোসেনের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম